কাযা নামাজ আদায়ে তারতীব রক্ষা কর কি আবশ্যক? কাযা নামজ আদায় করতে হয় এর কোন দলীল আছে কী?

আপনি আরও পছন্দ করতে পারেন...

4 Responses

  1. Jannat says:

    আমার অনেক নামাজ কাজা হয়েছে।।কি করব আমি।
    ? আমি ৫ ওয়াক্ত নামাজ ঠিক মতো পড়ি না। পড়ব পড়ব বলে আর পড়া হয় না। কিভাবে আমি এটা ঠিক করব???? amk pls ans ta dile khub khusi hobo

    • Admin says:

      ভাই এখন যেহেতু আপনার মনে প্রশ্ন জেগেছে তাই নিয়মিত নামাজ পড়া শুরু কর দিন। আর আল্লাহর উপর ভরসা করে আস্তে আস্তে পূর্বের কাজা গুলোও আদায় করতে থাকেন। আপনার ইচ্ছা থাকলে আল্লাহ তাআলা অবশ্যই সাহায্য করবেন।

  2. সম্পা says:

    নবীজি তো বলেছেন ঘুমিয়ে থাকলে বা ভুলে গেলে নামাজ কাজা পড়তে,,
    ঐ খানে কি এমন কিছু বলা হয়েছে ১০ বছরের নামাজ কাযা পরা যাবে।
    মুসলিমদের নামাজ ফরজ জানা সত্বেও আমরা যারা তা আদায় করি নি তা কিভাবে কাযা পড়বো।আমি ত ভুলে যাই নি বা ঘুমিয়ে থাকি নি।।
    ১০ বছর বা এক দিনের অধিক নামাজ কি রাসূল বা কোনে সাহাবী কাযা পরেছেন?

    • Admin says:

      আপনি দয়া করে উত্তরটি ভালোভাবে পড়ুন। সেখানে দেখবেন রাসূল নিজে সাহাবীদের নিয়ে কাযা নামাজ পড়েছেন। তার ও সাহাবীদের নামাজ কাযা হবার কারণ ঘুম কিংবা ভুলে যাওয়া ছিল না। তাহলে একথা দিয়ে দলীল দেয়া কিভাবে সঠিক হয়, ভুলে কিংবা ঘুমিয়ে থাকাবস্থায় কাযা হলেই তা আদায় করতে হবে অন্যথায় হবে না। নামাজ কাযা হলে তা যে আদায় করতে হয় হাদীস থেকে তা কি বুঝা যাচ্ছে না? এমন কোন হাদীস দেখান যেখানে কোন সাহাবী কিংবা তাবেয়ী নামাজ কাযা হয়ে যাবার পর তা আদায় করেননি। আমাদের সমাজের আহলে হাদীস ভাইরা ছাড়া মাযহাবের চারো ইমামসহ সবাই একমত যে নামাজ কাযা হয়ে গেলে তা আবার আদায় করতে হয়। আশা করি মুসলিম উম্মাহর বড় জামাতের সাথে আল্লাহর রহমত থাকবে। এ জামাতের সাথে থাকলে রহমত থেকে বঞ্চিত হতে হবে না।

Leave a Reply

%d bloggers like this: